শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
টরকী বন্দরের ডাকাতির নিউজ করায় সাংবাদিকের উপর হামলা আশুলিয়া থানা যুবলীগের শীর্ষ পদ চায় কে এই রাজু দেওয়ান? রক্তাক্ত ১৫ আগষ্টে ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান ময়মনসিংহে রওশন এরশাদের পক্ষে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাপার জাতীয় শোক দিবস পালন।। বানারীপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালন ও হত দরিদ্রদের মাঝে চেক ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের সাথে বাবুলের সাংগঠনিক বিষয়ে পরামর্শ ও আলোচনা বঙ্গমাতার জন্মদিনে বানারীপাড়ায় সেলাই মেশিন বিতরণ ময়মনসিংহের অষ্টধার ইউনিয়নে গণটিকার উদ্ভোধন করলেন চেয়ারম্যান তারেক হাসান মুক্তা।। তারাকান্দায় এডিসি ও ইউএনও’র গণটিকা কার্যক্রম পরিদর্শন।। সিরাজদিখানে গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
রিশিকুল ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী শফিকুল

রিশিকুল ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী শফিকুল

আলিফ হোসেন, তানোর :
রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুল সরকার ওরফে মামা শফিকুলকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চাই গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা ও কর্মী-সমর্থকগণ। আসন্ন রিশিকুল ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী শফিকুল সরকার সকলের কাছে সমর্থন ও দোয়া প্রার্থী। কারণ বর্তমান চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম ওরফে টুলুর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি, ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে, এছাড়াও শারীরিকভাবে এখন সে প্রতিবন্ধী। এসব বিবেচনায় ইউপিবাসী তাকে আর চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই না। তৃণমূলের অভিমত, আদর্শিক ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতা হিসেবে শফিকুল সরকার সব শ্রেণী-পেশার মানুষের কাছে সমান জনপ্রিয় ও সমাদৃত। এলাকার ১০ বছরের শিশু থেকে ৬০ বছরের বৃদ্ধ সব বয়সী মানুষের কাছেই তিনি শফিকুল মামা বলে পরিচিত।

জানা গেছে,

গোদাগাড়ী উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি হলেও তানোর-গোদাগাড়ী অঞ্চলের সব জায়গায় তার সরব বিচরণ। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূল থেকে রাজনীতি করে আসছেন এখানো তৃণমূলেই রয়েছেন। কোনো লোভ লালসা বা অর্থের মোহ তাকে আদর্শচ্যুত করতে পারেনি। তৃণমূলের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের আশ্রয় স্থল বলেও শফিকুল মামাকে বিবেচনা করা হয়। অথচ এখানো রাজনীতিতে তাকে কোনো জায়গা দেয়া হয়নি। তাই এবার এই জনপদের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের তৃণমূলের একটাই দাবি, আসন্ন রিশিকুল ইউপি নির্বাচনে শফিকুলকে চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী করা হোক। কারণ তারা যে কোনো মুল্য শফিকুলকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত হবার মতো সকল যোগ্যতা থাকার পরেও মনোনয়ন প্রাপ্তির অশুভ প্রতিযোগীতায় টিকতে না পেরে তাকে বার বার সরে আসতে হয়েছে। তবে এবার তৃণমূল কোনো অবস্থাতেই তাকে হারাতে চাই না তাকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চাই।

জানা গেছে, গোদাগাড়ী আওয়ামী যুবলীগের (সাবেক) সভাপতি, বজ্রকন্ঠের অধিকারী বর্ষিয়ান যুবলীগ নেতা, রাজশাহী অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ বক্তা ও সবার প্রিয় শফিকুল সরকার ওরফে মামা শফিকুলকে ঘিরে রিশিকুল ইউপি আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে রীতিমতো বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ ফিরে এসেছে প্রাণচাঞ্চল্য। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের বিভিন্ন অনিয়ম-দূর্নীতি, মতার অপব্যবহার ও সেচ্ছাচারিতার অতিষ্ঠ হয়ে এসবের প্রতিবাদে দল ত্যাগ করেন। এক সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। পরবর্তীতে সময়ে তাকে নানা প্রলোভন দিয়েও বিএনপি পুনঃরায় দলে ভেড়াতে ব্যর্থ হয়ে তারা ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ এই নেতার ওপর জেল-জুলুস-মামলা-হামলাসহ নানা নির্যাতন করেছেন। কিন্ত্ত বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত এই নেতা আর কখনই আদর্শচ্যুত হয়নি, ছেড়ে যায়নি আওয়ামী লীগ। একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ ওমর ফারুক চৌধূরীকে আবারো বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী করতে তিনি ব্যাপক অবদান রেখেছেন।বজ্রকন্ঠের অধিকারী শফিকুল সরকারের বক্তব্য শোনার জন্য এখানো তাঁর ভক্ত-অনুরাগি ও হাজারো মানুষ অপেক্ষায় খাকেন। এখানো তাঁর বক্তব্য শুনলে মনে পড়ে যায় ৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর সেই ঐতিহাসিক ২৭ মার্চের ভাষণ ও ৯০-এর গণঅভূখ্যানের কথা। এখানোর তাঁর বক্তব্য শুনে অনেক আওয়ামী লীগবিরোধী আওয়ামী লীগের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়। এবার তাকে তৃণমূল রিশিকুল ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই।

শফিকুল সরকার বলেন, রাজনীতিতে তরুণ প্রজন্মের মেধা কিভাবে কাজে লাগানো যায় আমরা সেই চেষ্টা করছি। বর্তমানে তরুণ প্রজন্ম রাজনীতির প্রতি চরম অনিহা দেখাচ্ছেন। আমরা চেষ্টা করছি কিভাবে তরুণ প্রজন্মকে আধূনিক তথ্যসমৃদ্ধ করে রাজনীতির প্রতি পজেটিভ ধারণা দেয়া যায়। আমরা সেই লক্ষ্য পূরুণের উদ্দেশ্যে সেই পথ ধরেই এগিয়ে চলেছি।

তিনি বলেন, এক সময় বিশেষ করে যুবলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি এলাকার সাধারণ মানুষের নেতিবাচক ধারণা ছিল। স্থানীয় সাংসদ ও সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধূরীর নেতৃত্বে ও দিক নির্দেশনায় আমরা চেষ্টা করছি সেই ধারণা পাল্টে দিতে, ইতিমধ্যে আমরা অনেকটা সফলও হয়েছি। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দলীয় কর্মকান্ড কিভাবে ডিজিটালাইজড ও এই প্রজন্মের নতুন ভোটারদের আওয়ামী লীগের পক্ষে নিয়ে আশা যায় সে চিন্তা মাথায় নিয়ে গবেষণা ও কাজ শুরু করেছি। রাজনীতিতে কিভাবে পরিবর্তন আনা যায়, মেধাভিত্তিক রাজনীতি প্রচলন কিভাবে পুনরায় করা যায়, শিাঙ্গনের অস্থিরতা কিভাবে দুর করা যায় এসব নানা বিষয়ে আমরা নতুন কিছু আবিস্কারের চেষ্টা করছি। তিনি বলেন, স্থানীয় সাংসদ ও সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধূরী রাজনৈতিক দূরদর্শি সম্পন্ন সৃষ্টিশীল মানুষ। তিনি রাজনীতিকে অর্থের কাছে নয় বরং মেধার কাছে জিম্মি রাখতে চান। তাঁর দিক নির্দেশনায় আমরা যুবলীগের নেতাকর্মীদের সেইভাবে গড়ে তোলার কাজ শুরু করেছি। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েন। এক সময় জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে তিনি আওয়ামী যুবলীগের লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়েছেন। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের কল্যাণে আজীবন কাজ করে যেতে চাই। তিনি বলেন, দেশ, দেশের মানুষ, নেতা ও দলের কাছে থেকে কি পেলামা বা কি পেলাম না সেটা না ভেবে বরং আমি বা আমরা দেশ, দেশের মানুষ, নেতা ও দলের প্রতি কি অবদান রাখতে পেরেছি বা পারিনি কোনো পারিনি সেটা অন্তরে রেখে কাজ করতে হবে। তিনি তৃণমূলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, দল, নেতা ও নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা রেখে কাজ করে যেতে হবে। তিনি বলেন, নেতা ও নেতৃত্বর সঙ্গে বেঈমানী করা যাবে না।

তানোর প্রতিনিধি।।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD