রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি-নতুনবাজারে সংবাদ প্রকাশের পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ

প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি-নতুনবাজারে সংবাদ প্রকাশের পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ

বানারীপাড়া(বরিশাল) প্রতিনিধি।। প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি করায় নতুনবাজারে সংবাদ প্রকাশের পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আদালত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। বানারীপাড়ার আউয়ার বাজার জামে মসজিদে বসে প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি করায় জাকির হোসেন নামে এক বিএনপি সমর্থকের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আদালত নির্দেশ দিয়েছেন। ১৪ সেপ্টেম্বর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বানরীপাড়া আমলী আদালত ওই আদেশ দেন। গত ১০ সেপ্টেম্বর বানারীপাড়া থানায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এইচ এম হাফিজুর রহমান মামুন একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগটি বানারীপাড়া থানায় সাধারন ডায়রি করে ১২ সেপ্টেম্বর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বানরীপাড়া আমলী আদালতে পাঠানো হয়। আদালত ওই অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদনসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এইচ এম হাফিজুর রহমান মামুন ৪ সেপ্টেম্বর উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের আউয়ার বাজার জামে মসজিদে এশার নামাজের প্রাক্কালে মসজিদের ইমাম হাফেজ মো. মাঈন উদ্দিনের সঙ্গে করোনা ভাইরাস প্রসংগে আলোচনা করেন। এসময় বিএনপি কর্মী জাকির হোসেন বলেন করোনা শেখ হাসিনার সৃস্টি, টিভিতে শেখ হাসিনাকে দেখলে সেদিন তার খারাপ যায়। তাৎক্ষনিক মামুন এর তীব্র প্রতিবাদ জানান এবং বিষয়টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান,আব্দুল মান্নান মৃধাইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন মন্টু ও সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মৃধাকে জানান। পর দিন এ বিষয়ে এলাকার নেতৃবৃন্দ ও গন্যমান্য ব্যাক্তিদের সমন্বয়ে মসজিদে শালিশ বৈঠক বসে। বৈঠকের এক পর্যায়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্পাদক শহীদুল ইসলাম জাকির হোসেনকে দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার জন্য বলেন । এসিদ্ধান্ত বৈঠকে বসা ব্যাক্তিদের মনপুত না হওয়ায় বৈঠক ভেঙে যায়। পরে ১০ সেপ্টেম্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

বানারীপাড়া থানার ওসি বলেন, সাধারন ডায়রী করে আদালতে পাটিয়েছিলেন। বিজ্ঞ আদালত তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে অইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।##

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD