মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১২:১৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
নড়াইলে মাসিক কল্যাণ সভায় সন্মাননা স্বীকৃতি স্বরূপ ক্রেস্ট ও নগদ অর্থ পুরস্কার প্রদান করলেন এসপি প্রবীর কুমার রায়। সুজানগর-চিনাখড়া সড়কের বেহাল দশা শাজাহানপুরে চার মাস পর বন্দিদশা থেকে মুক্ত হলেন গৃহবধূ বাজারে বিক্রি হচ্ছে রাসায়নিকযুক্ত আম নেই কোনো প্রশাসনিক নজরদারি গাজীপুর মহানগরে ২২ নং ওয়ার্ডে কিশোর গ্যাং, মাদক বিরোধী সভা অনুষ্ঠিত বাকেরগঞ্জ রঙ্গশ্রী ৬ নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় সাধারন সদস্য প্রার্থী নাজমা’র ভ্যান গাড়ি মার্কার প্রচার-প্রচারণায় এলাকাবাসী। ক্ষেতলালে বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধীর টাকা ভূতুড়ে একাউন্টে জগন্নাথপুরে মাসুম হত্যার ঘটনায় কাউন্সিলর সাফরোজকে মামলায় অর্ন্তভূক্ত করা ও আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন রামখানা ইউপির সার্বিক উন্নয়নের প্রত্যয় আবু বক্কর সিদ্দিকের বেগমগঞ্জে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ১
দৃশ্যমান স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ- দক্ষিনাঞ্চলের মানুষের জন্য আরও একটি সুখবর

দৃশ্যমান স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ- দক্ষিনাঞ্চলের মানুষের জন্য আরও একটি সুখবর

হেলাল শেখঃ বাংলাদেশের পদ্মা সেতু নির্মাণ হওয়াসহ দক্ষিণা লের লাখ লাখ মানুষের জন্য আরও একটি সুখবর যোগ হতে যাচ্ছে। শুধ যোগাযোগ নয়, পদ্মা সেতু প্রকল্পের মাধ্যমে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ৪০০ কেভি বিদ্যুৎ স ালন লাইন পেতে যাচ্ছেন দেশের দক্ষিণা লের মানুষ।
পদ্মা সেতু থেকে ২ কিলোমিটার ভাটিতে এ জন্য আলাদা করে ৭টি পিলার বসানো হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানান।বিশেষ করে মূল সেতুর জন্য বরাদ্দকৃত ১২ হাজার কোটি টাকা থেকেই নদীর গভীরে তৈরি হচ্ছে উক্ত পিলারগুলো।সূত্র জানায়, আগামী বছরের শেষ নাগাদ এ কাজ শেষ হতে পারে। হাইভোল্টেজের ৪০০ কেভির এই বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে যাচ্ছে বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পায়রা বন্দরসহ দক্ষিণা লের জেলাগুলো। আশুগঞ্জ, সিদ্দিরগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে পদ্মা নদী পার হয়ে বিদ্যুৎ যাবে উক্ত জেলাগুলোতে। বিশেষ করে পদ্মা সেতুর ষ্টিলের তৈরি কাঠামোতে ৪০০ কেভি হাইভোল্টেজ লাইন টানা সম্ভব নয় বলেই মূল সেতু থেকে ২ কিলোমিটার ভাটিতে আলাদা করে বসানো হচ্ছে ৭টি বিদ্যুতের বিশেষ খুঁটি।
বিশেষ করে সেতুর পাইলিংয়ের জন্য শক্তিশালী যে হ্যামার বাংলাদেশে আনা হয়েছে, সেগুলো দিয়েই বিদ্যুৎ বিভাগের জন্য তৈরি করা হচ্ছে এসব পিলার। মূল সেতুর জন্য বরাদ্দকৃত ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যেই নির্মাণ করা যাচ্ছে এই পিলারগুলো। গত বছরের জুন মাসে মাটি পরীক্ষার পর এর মধ্যে সবগুলো পিলারের পাইলিং করার কাজ শেষ। সূত্রমতে, ৩৬টি খুঁটির মধ্যে ৩২টির কনক্রিটিংয়ের কাজও সম্পন্ন। আগামী বছরের ডিসেম্বর মাস নাগাদ পুরো কাজটি বিদ্যুৎ বিভাগের হাতে বুঝিয়ে দেওয়া সম্ভব হবে বলে আশাবাদী সেতু বিভাগ।
এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে সেতু সচিব মোঃ বেলায়েত হোসেন বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে আমাদের অনুরোধ করা হয়েছে, যে এটা এপ্রিলের মধ্যে শেষ করার জন্য।তবে বাস্তব অগ্রগতি দেখে আমার মনে হয় আরও সময় লাগবে বিদ্যুৎ লাইনের কাজ শেষ করতে। তিনি আরও বলেন, আমরা আশা করছি, ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করতে পারবো। ৭টি পিলারের ৩টিতে ৪টি করে আর ৪টিতে ৬টি করে মোট ৩৬টি খুঁটি প্রবেশ করাতে হচ্ছে নদীর তলদেশে। এক একটি পিলারের মধ্যে দূরত্ব ৮৩০ মিটার। গত বৃহস্প্রতিবার (১০ ডিসেম্বর ২০২০ইং) ১২টা ২মিনিটে সেতুর সর্বশেষ ৪১তম স্প্যানটি বসে।২-এফ আইডির এই স্প্যান বসানোর পরই যুক্ত হলো মুন্সীগঞ্জ ও শরিয়তপুর জেলা। পদ্মা সেতুর পিয়ার-১২ ও পিয়ার-১৩ নম্বরে শেষ স্প্যানটি বসানো হয়। এসময় পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম এবং পদ্মা সেতুর প্রকল্প ব্যবস্থাপক ও নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. এ খবর নিশ্চিত করেন গণমাধ্যমকে।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সাংবাদিক সংস্থা’র ঢাকা বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম হেলাল শেখ বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা হয়ে জন্মেছেন বাংলার বুকে, তাই বাংলার মানুষ ডিজিটাল বাংলাদেশ পেয়েছেন এবং স্বপ্নের পদ্মা সেতু এখন দৃশ্যমান দেখা যাচ্ছে। আমরা সবাই আল্লাহর কাছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করি। দোয়া করি আল্লাহ যেন তাঁকে ভালো রাখেন, তিনি বেঁচে থাকলে বাংলাদেশের আরও উন্নয়ন হবে। কারণ, শেখ হাসিনা মমতাময়ী মা ও মানবতার এক দৃষ্টান্ত। আমাদের পক্ষ থেকে তাঁকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি, সেই সাথে আবারও তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করি। আমরা আশাবাদী যে, পদ্মা সেতু নির্মাণের পর, আগামীতে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-পাবনার কাজিরহাট ও দৌলদিয়া ত্রীমূখী সেতু নির্মাণ কাজ শুরু করবেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD