রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৬:১২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
লক্ষ্মীপুরে সমঝোতায় সুবিধা নিলো ঠিকাদার রাজস্ব বঞ্চিত সরকার কোটি টাকার বালু পানির দরে বিক্রি গৌরনদীতে চার শত লোকের হাতে করোনা সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দিলেন জেলা পরিষদের সদস্য হারুন হাওলাদার কেশবপুরে আরও এক করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন স্বপ্ন মৎস্য প্রকল্পের মৎস্যজীবিদের মাথায় হাত নড়াইলে লকডাউন কার্য্যকর করতে অভিযান চালিয়েছে এসপি প্রবীর কুমার রায় গৃহনির্মাণ কাজ পরিদর্শনে এডিসি মারুফুল আলম পাইকগাছায় করোনা প্রতিরাধ বিষয়ক পল্লী চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় চিংড়িতে অপদ্রব্য পুশ করার অপরাধে আটক-১ বিএফএ-এর পক্ষ থেকে পাবনা জেলা প্রশাসককে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান ফুলবাড়িয়ায় কলেজ পড়ুয়া ছাত্র ও তার বাবাকে জড়িয়ে মিথ্যা মামলার অভিযোগ
সুনামগঞ্জের অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী সন্ত্রাসীদের হামলায় এক পরিবারের ৮ জন গুরুতর জখম

সুনামগঞ্জের অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী সন্ত্রাসীদের হামলায় এক পরিবারের ৮ জন গুরুতর জখম

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি কেএম শহীদুল্লাহ।।
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের কাইয়ারগাওঁ গ্রামের তীরবর্তী চলতি নদীতে সরকারের রাজস্ব ফাকিঁ দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী কাইয়ারগাওঁ গ্রামের মকবুল হোসেন মুগল,শুক্কুর আলী নজরুল ইসলাম মানিকের নেতৃত্বে ৩০ জনের একটি সন্ত্রাসীদল চাইনিজ কুড়াল ও রামদা নিয়ে গত ২৬ অক্টোবর বিকেলে একই গ্রামের নিরীহ মোঃ ফরিদ মিয়া ও তাদের স্বজনদের বাড়িতে প্রবেশ করে হামলা চালিয়ে পরিবারের ৮ জনকে নারীপূরুষকে দাড়াঁলো অস্ত্র চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। তারা বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পূরুষ লোক বাড়িঘরে না থাকার সুযোগে সন্ত্রাসীরা ঐ নিরীহ পরিবারের বাড়িঘরে ভাংচুর ও লুটপাঠ করে সোনা গহনা টাকা পয়সা আসবাবপত্র নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত মো. ফরিদ মিয়া বাদি হয়ে গত ২৭ অক্টোবর একই গ্রামের মো: মকবুল হোসেন (মগল),মো: নজরুল ইসলাম(মানিক), শুক্কুর আলী,মো: ফয়েজ আলী সহ ২৪ জনকে আসামী করে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৪৮ । মামলা দায়েরের পর গত ২রা নভেম্বর সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমানসহ উচ্চ পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সকল আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ প্রদান করেন। ঐ রাতেই পুলিশ কাইয়ারগাঁও গ্রামে অভিযান চালিয়ে মো. মুক্তার হোসেন নামে এক আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই চোরাকারবারীরা গ্রামের মধ্যে প্রভাবশালী হওয়ার দরুণ দীর্ঘদিন ধরে কাইয়ারগাওঁ গ্রামের পাশে চলতি নদীতে নদীর পাড় কেটে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে বলগেট ন্যৌকা দিয়ে প্রতিরাতে লাখ লাখ টাকার বালু উত্তোলন করে নিয়ে যায়। গ্রামের কেহ এর প্রতিবাদ করলে ঐ চক্রটি লোকজনের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় । এ নিয়ে এলাকাবাসী ইতিমধ্যে মানববন্ধন কর্মসূচী ও পালন করে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধসহ সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য গত ২৫ অক্টোবর নদীতে রাতের আধাঁরে বালু উত্তোলনের সময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী মকবুল হোসেন মুগল গংদের দুটি নৌকা আটক করায় পরের দিন ২৬ অক্টোবর মকবুল গংরা গ্রামের নিরীহ ফরিদ মিয়ার পরিবারকে টার্গেট করে তাদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ৮জন নারীপূরুষকে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে মাথা,পিঠে ও হাতে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন।


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি।।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD