বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৫:৩১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
নড়াইলে ১৪৫ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ কেশবপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত এএসপি(মণিরামপুর সার্কেল) মামুনের মতবিনিময় সভা মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম‌্যান হাজী মোঃ বাচ্চু শেখ। পাইকগাছায় এক পুলিশ কর্মকর্তার ভাইয়ের দাপটে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী ইউএনও বরাবর অভিযোগ পাইকগাছা প্রেসক্লাব উন্নয়নে এমপি’র এক লাখ টাকা অনুদান ; প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে অভিনন্দন পাইকগাছায় স্বাস্থ্য শিক্ষা সেবা প্যাকেজ কার্যক্রমের উদ্বোধন শার্শার বাগআঁচড়ায় করোনা ঝুকি থাকলেও কেউ মানছেন না স্বাস্থ্য বিধি কন্ঠশিল্পী মাছুম তালুকদারের “বাবা আমার বাবা” পটিয়ার ইদ্রিস চৌধুরী কোটিপতি হওয়ার রহস্য চুনারুঘাটে জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় করেন জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান
পঞ্চগড়ে অবৈধভাবে গাছ কাটার অভিযোগ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে

পঞ্চগড়ে অবৈধভাবে গাছ কাটার অভিযোগ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে

মোঃ বাবুল হোসেন পঞ্চগড়।।
পঞ্চগড় সদর উপজেলায় দরপত্র চেয়ে সড়ক থেকে অবৈধভাবে অতিরিক্ত গাছ কেটে প্রতারণা করার অভিযোগ উঠেছে আশরাফ আলী নামে এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে। এছাড়া গাছ কাটার বিষয়টি যাতে বোঝা না যায় সে কারণে গোড়ায় মাটি দিয়ে ঢেকে রেখেছেন ওই ঠিকাদার।

এ ঘটনায় স্থানীয়রা ক্ষুব্ধ হয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে ওই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সকালে জেলার সদর উপজেলাধীন অমরখানা ইউনিয়নে সোনারবান-পাথরকাটা জামাদার পাড়া কাঁচা সড়কের উভয় পাশে এমন চিত্র দেখা গেছে।

জানা গেছে, অভিযুক্ত ঠিকাদার আশরাফ আলী একই ইউনিয়নের ধোপাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, অমরখানা ইউনিয়নে শোনারবান গ্রামের আরমান আলীর বাড়ির চৌরাস্তা থেকে পাথরঘাটার জামাদার পাড়া আলাউদ্দিনের বাড়ি পর্যন্ত কাঁচা সড়কের উভয় পাশে ৯৭ ইউক্লিপটাস গাছ কাটার দরপত্র হয়। দরপত্রের মাধ্যমে আশরাফ আলী ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা দিয়ে ওই গাছ ক্রয় করেন। পরে তিনি দরপত্রে উল্লেখিত ৯৭টি গাছের বিপরীতে মোট ১০৮টি গাছ কাটেন। তবে এর মধ্যে অতিরিক্ত ১১টি গাছ বেশি কেটেছেন প্রভাব খাটিয়ে। শুধু তাই নয়, তিনি ১১টি গাছ কেটে তার গোড়া মাটি ও ময়লা আর্বজনা দিয়ে ঢেকেও রেখেছেন৷ প্রতারণা করে সরকারি সম্পদ নষ্ট করার কারণে গত ২৮ অক্টোবর ওই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে ঠিকাদার আশরাফ আলী বলেন, ‘আমি দরপত্রের মাধ্যমে দুটি সড়কে লাগানো গাছের ডাক পেয়েছি। দুটি সড়কের মধ্যে একটি সড়কে ১১২টি এবং অন্যটিতে ৮৭টি গাছ রয়েছে। আমি যে সড়কের ৯৭টি গাছ ক্রয় করেছি, সেগুলো কাটার সময় ছোট গাছের উপর পড়ে দুই-তিনটা গাছ সড়কে হেলে যায়। এতে সাধারণ মানুষের চলাফেরার সমস্যা হওয়াতে আমি এগুলো লাকড়ি হিসেবে কেটেছি।’

এ বিষয়ে অমরখানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান নূর বলেন, ‘অতিরিক্ত গাছ কাটার বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং তদন্ত করে আশরাফ আলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোঃ বাবুল হোসেন পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি।।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD