রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
টরকী বন্দরের ডাকাতির নিউজ করায় সাংবাদিকের উপর হামলা আশুলিয়া থানা যুবলীগের শীর্ষ পদ চায় কে এই রাজু দেওয়ান? রক্তাক্ত ১৫ আগষ্টে ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান ময়মনসিংহে রওশন এরশাদের পক্ষে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাপার জাতীয় শোক দিবস পালন।। বানারীপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালন ও হত দরিদ্রদের মাঝে চেক ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের সাথে বাবুলের সাংগঠনিক বিষয়ে পরামর্শ ও আলোচনা বঙ্গমাতার জন্মদিনে বানারীপাড়ায় সেলাই মেশিন বিতরণ ময়মনসিংহের অষ্টধার ইউনিয়নে গণটিকার উদ্ভোধন করলেন চেয়ারম্যান তারেক হাসান মুক্তা।। তারাকান্দায় এডিসি ও ইউএনও’র গণটিকা কার্যক্রম পরিদর্শন।। সিরাজদিখানে গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
সুন্দরগঞ্জে রামজীবনের সভাপতি হিসেবে হুদা মাষ্টারকে দেখতে চায় আ”লীগ নেতাকর্মীরা

সুন্দরগঞ্জে রামজীবনের সভাপতি হিসেবে হুদা মাষ্টারকে দেখতে চায় আ”লীগ নেতাকর্মীরা

গাইবান্ধা থেকেঃ
আসছে আগামী ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে সুন্দরগঞ্জের রামজীবন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অন্যতম ত্যাগী নেতা শামসুল হুদা মাষ্টারকে এবার সভাপতি হিসেবে দেখতে চান ওই ইউনিয়নের অঙ্গ সংগঠণসহ মুল দলের আ’লীগ নেতা কর্মীরা।
রামজীবন ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আসন্ন কাউন্সিলে ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি হিসেবে সাদা মনের মানুষ ও মানুষ গড়ার কারিগর নামে পরিচিত হুদা মাষ্টারকে দেখতে চান তারা। তাদের ভাষ্য মতে হুদা মাষ্টার একজন জন দরদী ও আওয়ামী প্রেমিক উদার মনের মানুষ। এব্যাপারে ওই ইউনিয়নের বর্তমান আ”লীগ সহ-সভাপতি আব্দুল কাফী সরকার জানান, হুদা একজন কর্মঠ ও ত্যাগী মানুষ। তাই তার দ্বারায় দল পরিচালনা করা সম্ভব। এজন্য আমরা তাকেই এবার রামজীবনের সভাপতি বানাতে চাই। অপরদিকে আরেক বর্তমান সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম বিশ্বাস বলেন, আমরা সব সময় হুদাকে পাশে পাই,দলীয় প্রত্যেকটি কর্মকান্ডে তার সক্রিয় অংশগ্রহণ ও সহযোগিতা রামজীবন আ”লীগকে বেগবান করে তুলেছে। যার কারণে আমরা তাকেই সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই। এছাড়া প্রতিটি ওয়াডে তার অসংখ্য ভক্ত সমর্থক রয়েছে। যারা তাকে সভাপতি বানানোর জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন। এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আলীগ নেতা জানান,রামজীবনের সর্বত্র যে নেতাকে এক নাম,এক পরিচয়ে নেতা কর্মীরা চেনে তা হলো শামসুল হুদা মাষ্টার।

জন্মঃ সুন্দরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া গ্রামে ১০ আগস্ট ১৯৬৯ সালে বাবা মৃত ফয়জার রহমান ও মা সমস্তভান নেছার ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন তিনি।

ছাত্ররাজনীতিঃ ১৯৮৬ সালে গাইবান্ধা সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের সদস্য ও সক্রিয় কর্মী ছিলেন। ১৯৮৮ হতে ১৯৯০ সালে রংপুর কারমাইকেল কলেজে বিএ অর্নাস অধ্যয়নরত অবস্থায় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে তিনি অগ্রণী ভুমিকা পালন করেন। এ কারণে পরে তিনি পড়াশোনা ছেড়ে দিয়ে এসে ১৯৯১ সালে সুন্দরগঞ্জ ডি ডব্লিউ সরকারি কলেজ ভর্তি হন।

পেশাঃ পরে সেখান থেকে ১৯৯৩ সালে বিএ পাশ করে কে কৈ কাজদহ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন।
মুল দলের দায়ীত্ব গ্রহণঃ শিক্ষকতার পাশাপাশি ১৯৯৩’সালেই তিনি রামজীবন ইউনিয়ন আ”লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়ীত্ব ভার গ্রহণ করেন। সে অবধি তিনি অত্যন্ত দক্ষতা ও নিষ্ঠার সাথে আজও দায়ীত্ব পালন করে আসছেন।

সামাজিক পরিচিতিঃ রামজীবনের মানুষকে তিনি মনে প্রাণে ভালবাসেন। তাই ত তিনি সর্বদা সবার পাশে থাকেন।
সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণঃ
অপরদিকে সামাজিক বিভিন্ন কর্মকান্ডে অংশ গ্রহণে হুদার জুড়ি নেই। বিভিন্ন সভা -সমাবেশ,তাফসির মাহফীল,বিচার,সালিশসহ যাবতীয় সামাজিক কর্মকাণ্ডে তিনি ব্যস্ত সময় পার করেন।

রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণঃ প্রত্যেকটি স্থানীয় দলীয় মিছিল মিটিং ও সভা সমাবেশে তাঁর শত ভাগ সক্রিয় অংশগ্রহণ রয়েছে।

আলীগের দুর্দিনে সাড়াঃ ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বরে এমপি লিটনের অকাল মৃত্যুর পর এবং ২০১৭ সালের ১৯ ডিসেম্বরে এমপি গোলাম মোস্তফার মৃত্যুর পর আলীগের নেতা শূন্য দুর্দিনে তিনি রামজীবন আ”লীগের হাল ধরেছিলেন।এছাড়া ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী পরবর্তী কালেও তার ভূমিকা ছিল চোখে পড়ার মত।

ব্যক্তিত্ব ও বদান্যতাঃ তিনি অসাধারণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী।দল মত নির্বিশেষে আবাল বৃদ্ধ বনিতা সবার নিকট তাঁর একটা অন্য রকম গ্রহণ যোগ্যতা রয়েছে। এছাড়া দান দাক্ষিণ্যে তার বেশ নাম যশ রয়েছে। বিশেষ করে মসজিদ, মন্দির,মেয়ের বিয়ে,বিভিন্ন অসুখ বেসুখে তিনি সাধ্যমত সহযোগিতা করে থাকেন।
এসব মিলে সুন্দরগঞ্জের রামজীবন আ’লীগের তৃনমূল পর্যায়ের অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরাসহ মূল দলের নেতা কর্মীরা আগামী কাউন্সিলে হুদাকে মাষ্টারকে ওই ইউনিয়নের আ”লীগ সভাপতি হিসেবে দেখতে চান।এটা তাদের মনের কথা একান্ত প্রাণের দাবী। তা না হলে ভুল সিদ্ধান্তের কারণে আগামী দিনে এই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের রাজনীতি হারিয়ে যাবে বলে অনেকে মনে করেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD