রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
টরকী বন্দরের ডাকাতির নিউজ করায় সাংবাদিকের উপর হামলা আশুলিয়া থানা যুবলীগের শীর্ষ পদ চায় কে এই রাজু দেওয়ান? রক্তাক্ত ১৫ আগষ্টে ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান ময়মনসিংহে রওশন এরশাদের পক্ষে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাপার জাতীয় শোক দিবস পালন।। বানারীপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালন ও হত দরিদ্রদের মাঝে চেক ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের সাথে বাবুলের সাংগঠনিক বিষয়ে পরামর্শ ও আলোচনা বঙ্গমাতার জন্মদিনে বানারীপাড়ায় সেলাই মেশিন বিতরণ ময়মনসিংহের অষ্টধার ইউনিয়নে গণটিকার উদ্ভোধন করলেন চেয়ারম্যান তারেক হাসান মুক্তা।। তারাকান্দায় এডিসি ও ইউএনও’র গণটিকা কার্যক্রম পরিদর্শন।। সিরাজদিখানে গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
বিল্পবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বিল্পবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নিউজ ডেস্ক।।
প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার যিনি প্রীতিলতা ওয়াদ্দের নামেও পরিচিত। মানুষটি জন্মেছিলেন ১৯১১ সালের ৫ই মে আর দেশের জন্য স্বীয় ইচ্ছায় মৃত্যু বরন করেছিলেন ১৯৩২ সালের ২৩শে সেপ্টেম্বর যদিও তার মৃত্যুটি রাতে হওয়ায় অনেকে ২৪শে সেপ্টেম্বর ধরে থাকে। প্রায় ২২ বছর বয়সে দেশের স্বাধীনতার জন্য আত্মাহুতি দিয়েছিলেন বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দের। তার ডাকনাম ছিলো রাণী,ছদ্মনাম হলো ফুলতারা,একজন খাটি বাঙালি ছিলেন,যিনি ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নারী মুক্তিযোদ্ধা ও প্রথম বিপ্লবী মহিলা শহীদ ব্যক্তিত্ব। তৎকালীন পূর্ববঙ্গে জন্ম নেয়া এই বাঙালি বিপ্লবী মাষ্টার দা সূর্য সেনের নেতৃত্বে তখনকার ব্রিটিশ বিরোধী সশস্ত্র আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন ও জীবন বিসর্জন করেন।

১৯৩২ খ্রিষ্টাব্দে পাহাড়তলী ইউরোপিয়ান ক্লাব দখলের সময় তিনি ১৫ জনের একটি বিপ্লবী দল পরিচালনা করেন। এই ক্লাবটিতে একটি সাইনবোর্ড লাগানো ছিলো যাতে লেখা ছিলো “কুকুর এবং ভারতীয়দের” প্রবেশ নিষেধ। পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রীতিলতার দলটি ক্লাবটি আক্রমণ করে। আক্রমণ কালে প্রীতিলতার গায়ে গুলি লাগে।পাহাড়তলী ইউরোপীয় ক্লাব আক্রমণ শেষে পূর্বসিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রীতিলতা পুলিশের কাছে ধরা না দেয়ায় জন্য পটাসিয়াম সায়ানাইড মুখে নিয়ে নেন। কালীকিংকরদের কাছে তিনি তাঁর রিভলবারটা দিয়ে আরো পটাশিয়াম সায়ানাইড চাইলে,কালীকিংকর তা প্রীতিলতার মুখের মধ্যে ঢেলে দেন। প্রীতিলতা তখন ইউরোপীয় ক্লাব আক্রমণে অংশ নেয়া অন্য বিপ্লবীদের দ্রুত স্থান ত্যাগ করার নির্দেশ দেন।পটাসিয়াম সায়ানাইড খেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়া প্রীতিলতাকে বিপ্লবী শ্রদ্ধা জানিয়ে সবাই স্থান ত্যাগ করেন। পরদিন পুলিশ ক্লাব থেকে ১০০ গজ দূরে মৃতদেহ দেখে পরবর্তীতে প্রীতিলতাকে সনাক্ত করেন। তাঁর মৃতদেহ তল্লাশীর পর বিপ্লবী লিফলেট,অপারেশনের পরিকল্পনা,রিভলবারের গুলি,রামকৃষ্ণ বিশ্বাসের ছবি এবং একটা হুইসেল পাওয়া যায়। ময়না তদন্তের পর জানা যায় গুলির আঘাত তেমন গুরুতর ছিল না কিন্তু পটাশিয়াম সায়ানাইড ছিলো তাঁর মৃত্যুর কারণ।

ভারতবর্ষ বর্তমান ভারত,পাকিস্তান ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্যে এসব সোনার মানুষ নিজেদের দিয়েছিলেন কোরবানি। তার মৃত্যুবার্ষিকীতে আমরা তাঁদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.net কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD